লিজা ডাক্তার হতে চায়,বাবা যখন অপারেশন থিয়োটারে মেয়ে জিপিএ-৫,

লালমনিরহাট প্রতিনিধিঃ লালমনিরহাটের হাতীবান্ধা উপজেলার সিংগীমারী গ্রামের আওলাদ হোসেন দাঁত ও মুখে ক্যান্সার আক্রান্ত হয়ে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

অপর দিকে তার একমাত্র মেয়ে আশিকা সুলতানা লিজা এবারের এস এস সি পরীক্ষার ফলাফলে জিপিএ-৫ পেয়েছে। সে ডাক্তার হতে চায়।

জানাগেছে, উপজেলার সিংগীমারী গ্রামের আওলাদ হোসেন দীর্ঘদিন থেকে দাঁত ও মুখে ক্যান্সার আক্রান্ত হয়ে দুই বার অপারেশন করে চিকিৎসা করতে নিজের যাহা সহয় সম্বল ছিল সব শেষ করেও সুস্থ্য না হওয়ায় বর্তমানে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

লিজা বলেন,বাবা যখন অপরেশন থিয়োটারে ঠিক সেদিনেই এসএসসি পরীক্ষার ফলাফলে আমি বিজ্ঞান বিভাগ থেকে জিপিএ-৫ পেয়েছি।

আমি পড়ালেখা শেষ করে ডাক্তার হয়ে, মানুষের সেবা করতে চাই। লিজার মা লাইজু বেগম বলেন, দুই ভাইবোনের মধ্যে লিজা ছোট। সে হাতীবান্ধা আর্দশ উচ্চ বিদ্যালয় থেকে বিজ্ঞান বিভাগে এস এস সি পরীক্ষায় অংশগ্রহন করে জিপিএ-৫ অর্জন করেছে।

ছেলে একমাত্র পরিবারের উপার্জনকারী ব্যক্তি , তার উপার্জনে চলে পরিবারের ভরণপোষন।

তাই লিজার স্বপ্নপূরন কি হবে? কে নিবে লিজার পড়ালেখার ব্যয় বহনের দায়িত্ব। তার বাব আওলাদ হোসেন দাঁত ও মুখে ক্যান্সার আক্রান্ত হয়ে বর্তমানে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

ডেন্টাল এন্ড মেক্সিলোফেসিয়াল সার্জারী বিভাগের প্রধান ডাক্তার মুসা সিদ্দিক জুয়েল বলেছেন, আওলাদ হোসেন দাঁত ও মুখে ক্যান্সার আক্রান্ত হয়েছে, গত সোমবার তার অপারেশন করা হয়েছে। আশা করি কিছুদিনের মধ্যে সুস্থ্য হয়ে উঠবে।

মেধাবী লিজা’র লেখাপড়ার শেষ করে স্বপ্নপুরনের জন্য তার মা লাইজু বেগম দেশরে বিভিন্ন ব্যাংক, বিমা, এনজিও এবং দানশীল বৃত্তবান ব্যাক্তি দ্বয়ের নিকট সাহায্যের আবেদন জানিয়েছেন।


আকাশবাংলা টিভি তে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।